যেসব খাবার সর্দি ও গলা ব্যথায় ক্ষতিকর

0
40
টার্ম মুছে ফেলুন: কমলা জাতীয় খাবার কমলা জাতীয় খাবারটার্ম মুছে ফেলুন: চিনি চিনিটার্ম মুছে ফেলুন: ভাজা খাবার ভাজা খাবারটার্ম মুছে ফেলুন: দুধ দুধটার্ম মুছে ফেলুন: দই ও পনির দই ও পনিরটার্ম মুছে ফেলুন: গরম মশলা গরম মশলাটার্ম মুছে ফেলুন: সর্দি ও গলা ব্যথা সর্দি ও গলা ব্যথা
যেসব খাবার সর্দি ও গলা ব্যথায় ক্ষতিকর

শীতের দিন আসলেই বেড়ে যায় সর্দি ও গলা ব্যথা। তাই এই সময়ে ঠাণ্ডা পানি খাওয়া থেকে বিরত থাকতে হবে।সাধারণ অবস্থায় যেসব খাবার উপকারী, গলা ব্যথার সময়ে সেগুলোই এড়িয়ে চলা উচিত।

গলা ব্যথার কারণে অনেকেই খাওয়াদাওয়াও করতে পারেন না। কয়েক দিনের মাঝেই এই গলা ব্যথা সেরে যায়। তবে এ সময়ে কিছু খাদ্য, পানীয় ও মশলা এড়িয়ে চললে গলা ব্যথার কষ্টটা কম হয়।গলা ব্যথার সময়ে এমনিতে খাওয়া যায় না। এ অবস্থায় কিছু খাবার খেলে তা ব্যথা আরও বাড়িয়ে দিতে পারে।

আসুন জেনে নিন কী খাবার এড়িয়ে চলবেন গলা ব্যথায়।

মশলা

আমচুর, আনারদানা পাউডার, চটপটির মশলা, তেঁতুলের মশলা এগুলো গলা ব্যথার সময়ে খাওয়া উচিত নয়। মূলত টক স্বাদের মশলাগুলো এ সময়ে এড়িয়ে চলা উচিত।

দুধ, দই ও পনির

ঠাণ্ডা লাগলে দই খাওয়া উচিত নয়। এতে বুকে কফ বেশি জমতে পারে। অন্যদিকে দুধ ও পনির খেলে ইনফ্লামেশন বাড়ে। তাই এ খাবারগুলো এড়িয়ে চলুন।

আরও জানুন ঃ গর্ভাবস্থায় এক্স-রে ক্ষতিকর

কমলা জাতীয় খাবার

টক খেলে ঠাণ্ডা কমে যেতে পারে, এই চিন্তা করে অনেকেই কমলা, জাম্বুরা, লেবু খান। কিন্তু এই টক খাবারগুলো গলা ব্যথা বাড়াতে পারে। গলা ব্যথা কমার জন্য অপেক্ষা করুন।

ভাজা খাবার

ফ্রেঞ্চ ফ্রাই, পুরি, সিঙ্গারা, ফ্রাইড চিকেন- এ ধরণের তেলে ভাজা খাবারগুলো একদিকে যেমন গলার জন্য ক্ষতিকর, অন্যদিকে তা হজম হতে চায় না সহজে। ফলে আপনি বেশি অসুস্থ বোধ করেন।

চিনি

বেশি পরিমাণে চিনি দেওয়া খাবার এড়িয়ে চলুন। চিনি যত খাবেন, রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা তত দুর্বল হবে। শুধু তাই না, কার্বোনেটেড পানীয় পেটে এসিড তৈরি করে আপনাকে আরও অসুস্থ করে ফেলতে পারে।

দৈনিক যুগান্তর, ৩১ অক্টোবর ২০১৮

 

LEAVE A REPLY