রোদ–বৃষ্টির দিনে ত্বক ও চুলের যত্ন

0
53
টার্ম মুছে ফেলুন: রূপবিশেষজ্ঞ রাহিমা সুলতানা রূপবিশেষজ্ঞ রাহিমা সুলতানাটার্ম মুছে ফেলুন: তৈলাক্ত ত্বক তৈলাক্ত ত্বকটার্ম মুছে ফেলুন: স্বাভাবিক ত্বক স্বাভাবিক ত্বকটার্ম মুছে ফেলুন: ময়শ্চারাইজিং লোশন ময়শ্চারাইজিং লোশনটার্ম মুছে ফেলুন: ক্লেনজিং লোশন ক্লেনজিং লোশনটার্ম মুছে ফেলুন: চুল ধোয়া চুল ধোয়াটার্ম মুছে ফেলুন: শ্যাম্পু ও কন্ডিশনার শ্যাম্পু ও কন্ডিশনারটার্ম মুছে ফেলুন: খুশকিমুক্ত খুশকিমুক্তটার্ম মুছে ফেলুন: পরামর্শ পরামর্শ
রোদ–বৃষ্টির দিনে ত্বক ও চুলের যত্ন

এই রোদ এই বৃষ্টি, এমনটাই চলছে এখন। এই আবহাওয়ায় শরীর কখনো ঘামে ভিজে থাকে নতুবা বৃষ্টির পানিতে৷ ফলে ত্বকে কিছু ছত্রাক সংক্রমণ (ফাংগাল ইনফেকশন) দেখা যায়। এ ব্যাপারে কথা হচ্ছিল বারডেম হাসপাতালের চর্ম ও যৌনরোগ বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক হোসনে আরা বেগমের সঙ্গে। কী ধরনের সংক্রমণ হতে পারে তা জানালেন তিনি। সাধারণত মাথার ত্বক ও শরীরের ত্বকই এতে আক্রান্ত হয়। শিশুরাও সংক্রমণের শিকার হতে পারে।
এই আবহাওয়ায় মাথায় প্রচুর ধুলাবালি আটকে থাকে। ফলে খুশকি ও চুলকানি হয়। এটি শরীরেও ছড়িয়ে যেতে পারে।
শিশুদের মাথায় একধরনের ছত্রাক দেখা যায়। ছত্রাক থাকার কারণে মাথার ওই স্থানে চুল উঠতে পারে না।
এ ছাড়া শরীরেও ফাংগাস হয়ে থাকে একে টিনিয়া কর্পোরিস বলা হয়। এটি শরীরের এক জায়গা থেকে অন্য জায়গায় ছড়িয়ে যেতে পারে।
এসব সংক্রমণ থেকে রক্ষা পেতে হলে সব সময় ত্বক পরিষ্কার রাখতে হবে। এ ছাড়া এ নিয়ে আরও কিছু পরামর্শ দিলেন হারমনি স্পার আয়ুর্বেদিক রূপবিশেষজ্ঞ রাহিমা সুলতানা। তিনি বলেন, ‘আবহাওয়ার সঙ্গে ত্বকের ধরনটাও বদলে যায়। তাই ত্বকের ভিন্নতার ওপর নির্ভর করে কিছু যত্নের প্রয়োজন।’ তাঁর পরামর্শ—

1.প্রতিদিন চুল ধোয়া যাবে তবে শ্যাম্পু ও কন্ডিশনার একদিন পর পর লাগানো উচিত।

2. মাসে অন্তত দুবার তেল লাগাতে হবে। নারকেল তেলের সঙ্গে গোটা মেথি চুলায় জ্বাল দিয়ে ফুটিয়ে ছেঁকে একটি বোতলে ভরে রাখতে পারেন। চুলে এই তেল লাগানোর আগে হালকা গরম করে ১ টেবিল চামচ লেবুর রস মিশিয়ে নিলে চুল খুশকিমুক্ত থাকবে।

3.মুখ পরিষ্কারের জন্য ক্লেনজিং লোশন ব্যবহার করা ভালো। তবে মুখ ধোয়ার পর ময়শ্চারাইজিং লোশন ব্যবহার করতে হবে।

4. মাসে অন্তত দুবার ত্বকের মরা কোষ তুলে ফেলা উচিত। এ জন্য স্ক্রাব ব্যবহার করতে হবে।
ত্বকের যত্নে তিনি কিছু ভেষজ স্ক্রাব তৈরির কিছু পরামর্শ দিয়েছেন—

স্বাভাবিক ত্বক

চালের গুঁড়া, গাজরের রস, দুধ ও মধু এবং সঙ্গে কয়েক ফোঁটা জলপাইয়ের তেল মিশিয়ে লাগাতে হবে।

তৈলাক্ত ত্বক

চালের গুঁড়া, শসার রসের সঙ্গে ১/২ ফোঁটা লেবুর রস দিয়ে মুখে লাগাতে হবে।
এই প্যাকগুলো লাগানোর পর শুকিয়ে গেলে আলতোভাবে ম্যাসাজ করে মুখ ধুয়ে ফেলতে হবে।
বর্ষায় ত্বক ও চুলে সংক্রমণের সমস্যা এড়ানোর জন্য শরীর ও মাথার ত্বক সব সময় পরিষ্কার রাখতে হবে। সুতির হালকা পোশাক পরতে হবে। খুব প্রয়োজন ছাড়া কড়া রোদে অথবা বৃষ্টিতে না বের হওয়াই ভালো। বাইরে গেলে অবশ্যই সঙ্গে ছাতা ব্যবহার করা উচিত।

দৈনিক প্রথম আলো, ০১ অগাস্ট ২০১৮

LEAVE A REPLY