শসা খেয়ে ওজন কমাতে গিয়ে যত বিপদ!

0
54
ভিটামিনটার্ম মুছে ফেলুন: মিনারেলস মিনারেলসটার্ম মুছে ফেলুন: এন্টিঅক্সিডেন্ট এন্টিঅক্সিডেন্টটার্ম মুছে ফেলুন: ক্যালরি ক্যালরিটার্ম মুছে ফেলুন: পুষ্টি পুষ্টিটার্ম মুছে ফেলুন: গ্যাসের সমস্যাসহ পেট ফাঁপা গ্যাসের সমস্যাসহ পেট ফাঁপাটার্ম মুছে ফেলুন: পেট ব্যাথা পেট ব্যাথাটার্ম মুছে ফেলুন: বমি বমি ভাব বমি বমি ভাবটার্ম মুছে ফেলুন: রক্তে গ্লুকোজ রক্তে গ্লুকোজটার্ম মুছে ফেলুন: টক দইয়ের সঙ্গে টক দইয়ের সঙ্গেটার্ম মুছে ফেলুন: রাতের খাবারের সঙ্গে রাতের খাবারের সঙ্গেটার্ম মুছে ফেলুন: বিকালে নাস্তার সঙ্গে বিকালে নাস্তার সঙ্গে
শসা খেয়ে ওজন কমাতে গিয়ে যত বিপদ!

ওজন কমাতে অনেকে অনেক রকম ডায়েট ফলো করে থাকেন তার মধ্যে একটি হচ্ছে শসা খেয়ে ওজন কমানো। আজ আমি শসা খেয়ে ওজন কমানো যায় কিনা এবং অতিরিক্ত শসা খেলে যেসব সমস্যা হওয়ার আশংকা থাকে তা জানাবো।

শসা হচ্ছে, একটি লো ক্যালরি বা খুব কম ক্যালরিযুক্ত একটি খাবার। শসার মধ্যে পানির পরিমাণ অনেক। ১০০ গ্রাম শসাতে পানির পরিমাণ ৯৪.৯ গ্রাম এবং ক্যালরি ২২ কিলো ক্যালরি এছাড়াও শসা একটি ভাল মানের এন্টিঅক্সিডেন্ট জাতীয় খাবার। শসাতে কিছু পরিমাণ ভিটামিন,মিনারেলস এবং আঁশ থাকে।
কিন্তু ভাল একটি খাবার শসাও মানুষের শরীরের জন্য ক্ষতিকর হয়ে যায় যখন কেউ মনে করে শুধুমাত্র শসা খেয়ে ওজন কমানো যায়। শসাকে ওজন কমানোর একমাত্র ওষুধ মনে করে।

আমরা ডায়টেশিয়ানরা ডয়েট চার্টে শসাটা রাখি।কিন্তু শুধু শসা খেয়ে আমরা ওজন কমাতে বলি না।কিন্তু অনেকেই ওজন কমানোর জন্য শসাকে ওষুধ হিসবে ধরে নিয়ে সারাদিন ধরে শসা খেতে থাকে।যখনই ক্ষুধা লাগে শসা খেতে শুরু করে।যেহেতু শসা একটি কম ক্যালরিযুক্ত খাবার তাই শসা কেন অন্য যেকোন কম ক্যালরি যুক্ত খাবার একনাগারে খেতে থাকলে ওজন কমে যাবে। কিন্তু সেই সঙ্গে আপনার শরীরে দেখা দেবে বিভিন্ন পুষ্টি উপাদনের ঘাটতি।

অন্য খাবার কম খেয়ে সারাদিন বা অতিরিক্ত পরিমানে শসা খেতে থাকলে বা ক্ষুধা লাগলেই শসা খেলে বদহজম, গ্যাসের সমস্যাসহ পেট ফাঁপা,পেট ব্যাথা, , বমি বমি ভাব ইত্যাদি দেখা দেয়।

প্রায় এক মাস ধরে ওজন কমাতে সারাক্ষণ শসা খেলেই ঘটবে নানা বিপত্তি। শরীরে পর্যাপ্ত পুষ্টির অভাবে শরীর ভীষণদুর্বল হয়ে যাবে। কাজ করার শক্তি পাবেন না। রক্ত কমে যাওয়ার আশংকা রয়েছে। এছাড়াও রক্তে গ্লুকোজের অভাবে মাথা ঘুরে পরে যাওয়ার মতো অনাকাঙ্ক্ষিত ঘটনাও ঘটতে পারে।

যেভাবে শসা খাবেন শসা আপনি আপনার খাবারের সঙ্গে যোগ করে খেতে পারেন। সকালের নাস্তার পর, দুপুরের খাবারের সঙ্গে সালাদ হিসাবে,বিকালে নাস্তার সঙ্গে যেমন- টক দইয়ের সঙ্গে,রাতের খাবারের সঙ্গে।

এছাড়াও যদি আপনি আপনার ডায়েটে শসা যোগ করেন তবে এতে করে আপনার খাবারের পরিমাণটা বাড়বে, খাবার সুস্বাদু হবে, শসা খাওয়ার প্রতি বিরক্তি আসবে না। এর ফলে আপনার খাবারটা আপনার শরীরে ধীরে ধীরে হজম হবে; যা আপনার ওজন কমাতে সাহায্য করবে। তখন রক্তের চর্বি কমাতে সাহায্য করবে।

এক্ষেত্রে অবশ্যই সম্পূর্ণ খাবারের ক্যালরি আপনার শারীরিক গঠন, বয়স, শারীরিক পরিশ্রম ইত্যাদির ওপর নির্ভর করে ঠিক করে নিতে হবে।

আবারও বলতে চাই,শুধু শসা খেয়ে ওজন কমাতে যাবেন না এতে করে বিভিন্ন শারীরিক সমস্যাসহ শসার ওপর বিরক্তি তৈরি হবে। ফলে এত ভাল এবং উপকারি সবজি খাওয়াটাই আপনার বন্ধ হয়ে যাবে। মোট কথা- ওজন কমাতে শুধু শসা নয়, সব খাবারই পরিমাণ মতো খেতে হবেশসার সঙ্গে।

লেখক: মাহফুজা নাসরীন শম্পা,
পষ্টিবিদ, আলরাজী ইসলামিয়া হাসপাতাল,
বনশ্রী, রামপুরা, ঢাকা।
দৈনিক যুগান্তর , ১৬ অক্টোবর ২০১৮

LEAVE A REPLY