শাশুড়ির মন জয় করতে কি করবেন?

0
41

বিয়ের পরে নারীরা একটি নতুন সংসারে নিজেকে মানিয়ে নিতে বেশ হিমশিম খান। তবে মনে রাখবেন নতুন সংসারে আপনাকে অনেক কিছু গুছিয়ে চলতে হবে। বিশেষ করে সংসারে শ্বশুর-শাশুড়ি ও গুরুজনদের মান্য করতে হবে।

ঘরে নারীদের অধিকাংশ সময় কাটে শাশুড়ি সঙ্গে।তাই পরিবারের নতুন সদস্য হিসেবে সবার সঙ্গে মানিয়ে চলা ও শাশুড়ির পছন্দ করে না এমন কিছু কখনোই করবেন না। যদি শাশুড়ির মন জয় করতে পারেন তবে আপনার হবে সুখের সংসার। আর স্বামীর সঙ্গে দাম্পত্য জীবন হবে অনেক মধুময়।

আসুন জেনে নেই সংসারে শাশুড়ির মন জয় করতে কি করবেন?

মিথ্যে বলবেন না

ভুলেও কোনো বিষয়ে শাশুড়ির মিথ্যে বলতে যাবেন না। যা সত্যি তা যদি তার কাছে খারাপও লাগে তাও সত্যি বলুন। কারণ এখন মিথ্যে বলে হয়তো কিছুটা সময়ের জন্য পার পাবেন কিন্তু যে কোনো সময়ে সত্যি প্রকাশের ভয় থাকবে।

মায়ের মতো মনে করুন

নিজের শাশুড়িকে আপনার মায়ের মতো দেখবেন সব সময়। তাহলে অনেক সমস্যার সমাধান হয়ে যাবে। তবে ভাব জমিয়ে সব কথা বলে দিলে শাশুড়ির মন পাওয়া যাবে। আপনার মায়ের মতো হলেও তিনি সব ভুল ক্ষমা করে আপনাকে মেনে নিতে নাও পারেন। প্রয়োজন না হলে সবকিছু বলার দরকার নেই।

রাগ করবেন না

শাশুড়ির সাথে মন খারাপ করে রাগ করে তার মন পাওয়ার চেষ্টা করতে যাবেন না। তিনি বড় মানুষ এবন গুরুজন। ভুল বোঝাবুঝির অবসান করতে কথা বলুন। রাগ করে বসে থাকবেন না।

স্বামীর অতিরিক্ত খেয়াল

অনেক শাশুড়িই এই ব্যাপারটি পছন্দ করেন না। তবে সকলে এমন নন। কিন্তু তারপরও একজন মায়ের চাইতে অন্য আরেকজন তার ছেলের প্রতি অতিরিক্ত কেয়ার দেখাচ্ছে তা অনেকেরই মানতে বেশ কষ্ট হয়। তাই স্বাভাবিক থাকার চেষ্টা করুন।

তর্ক করবেন না

তর্ক করা কেউ পছন্দ করে না। শাশুড়ির সাথে কখনও তর্ক করতে যাবেন না। হয়তোবা তিনি ভুল বলছেন। কিন্তু তার সাথে তর্ক না করে সেটা তাকে বুঝিয়ে বলুন।

ঘরের কাজ

রান্নাঘর, ঘরের কাজে অথবা যে কাজে আপনার শাশুড়ির সাহায্যকারীর প্রয়োজন সেখানে তাকে সাহায্য করুন। সে যদি আপনাকে কাজের কথা না বলেও তাকে সাহায্য করুন। এতে তিনি আপনার ওপর খুশি হবেন।

উপহার দিন

আপনাকে যদি কেউ উপহার দেয় আপনি কি খুশি হবেন না? হবেন নিশ্চয়। আপনার শাশুড়িও তার ব্যতিক্রম নয়। বিভিন্ন উৎসব অথবা উৎসব ছাড়া আপনার শাশুড়িকে উপাহার দিন। এতে তিনি বুঝবেন আপনি তার পছন্দ অপছন্দ সম্পর্কে জানেন। এতে তিনি খুশি হবেন।

প্রশংসা করুন

প্রশংসা শুনতে প্রতিটি মানুষ পছন্দ করে। আপনি আপনার শাশুড়ির প্রশংসা করুন। তার রান্নার, তার পছন্দের, এমনকি তার পোশাকও হতে পারে আপনার প্রশংসার বিষয়বস্তু।

মার্জিত পোশাক পরুন

আপনার শাশুড়ি যেমন পোশাকে আপনাকে দেখতে চায় তেমন পোশাক পরার চেষ্টা করুন। হয়তো আপনি সেটা পরতে অভ্যস্ত হবেন না। তবুও মাঝে মাঝে তার পছন্দের পোশাক পরার চেষ্টা করুন। এতে তিনি খুশি হবে এবং বুঝবেন উনার পছন্দের মূল্য আপনার কাছে আছে।

প্রতিদ্বন্দ্বিতা করবেন না

আপনার স্বামী যদি আপানার শাশুড়ির রান্না পছন্দ করে সেটা নিয়ে রাগ করবেন না। বরং আপনি আপনার শাশুড়ির প্রশংসা করুন। তার সাথে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করতে যাবেন না। এতে সম্পর্ক নষ্ট হয়ে যায়।

LEAVE A REPLY